Breaking News
Home / টপনিউজ / দম্পতির সন্তান হচ্ছে না তাই চিকিত্‍সা নিতে গিয়ে জানলো তাঁরা যমজ ভাইবোন!

দম্পতির সন্তান হচ্ছে না তাই চিকিত্‍সা নিতে গিয়ে জানলো তাঁরা যমজ ভাইবোন!

Loading...

দম্পতির সন্তান হচ্ছে না তাই চিকিত্‍সা নিতে গিয়ে জানলো তাঁরা যমজ ভাইবোন!
এক বিবাহিত দম্পতি প্রাকৃতিক নিয়মে সন্তান নিতে ব্যর্থ হয়ে আইভিএফ পদ্ধতিতে সন্তান নেয়ার চেষ্টা করতে গিয়ে জানা গেলো তারা প্রকৃতপক্ষে যমজ ভাইবোন। সিনেমার গল্পকেও হার মানানোর মতো এ ঘটনা ঘটেছে আমেরিকার মিসিসিপি অঙ্গরাজ্যে।

এ নিয়ে চিকিৎসক বলেন, সন্তান ধারণে ব্যর্থ হয়ে আমার কাছে শরণাপন্ন হন ওই দম্পতি। আমরা তাদের কাছ থেকে স্যাম্পল সংগ্রহ করে নিয়মিত পরীক্ষার অংশ হিসেবেই দেখছিলাম তাদের মধ্যে কোনো সম্পর্ক রয়েছে কী না। কিন্তু এই ঘটনায় দু’জনের প্রোফাইলের মধ্যে এতো বেশি মিল দেখে ল্যাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ঘাবড়ে যান।তিনি আরো বলেন, আমার ধারণা ছিলো সম্ভবত তারা কোনো ভাবে আত্মীয়, হয়তো বাবার বা মায়ের আপন ভাই বোনের ছেলেমেয়ে।

কিন্তু আরো ভালো করে দেখার পর আমার ভুল ভাঙে, দেখি তাদের মধ্যে বেশ মিল। এমনকি ফাইল দেখে এটাও বের করি ১৯৮৪ সালের একই দিনে তাদের জন্ম।এই বিষয়ে তখন চিকিৎসকের সন্দেহ হয় যে এই দু’জন যমজ ভাইবোন। ওই দম্পতিকে জানালে তারা বিষয়টি হেসে উড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।স্বামী বলেন, অনেক মানুষ আমাদের একই দিনে জন্মদিন ও চেহারার মিলের কথা বলেছে, তবে তারা কোনোভাবেই সম্পর্কিত নয়। বরং তাদের কলেজে পড়াশোনা করার সময় সাক্ষাত এবং সেখানেই প্রেম এবং তারপর বিয়ে।

Sponsored by Revcontent
Buried for 71 Years; Hitler’s Final Secret Revealed
ওই দম্পতির সঙ্গে কথা বলে পুরো বিষয়টি উদঘাটন করেন ওই চিকিৎসক।তিনি বলেন, এই দু’জনের জন্মের পরেই তাদের বাবা-মা সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান এবং তারপর রাষ্ট্রের তত্ত্বাবধানে তাদের দত্তক নেয় দু’টি পরিবার। যেহেতু তাদের শৈশব ও বেড়ে ওঠাটা একরকম ছিল ফলে তাদের মধ্যে খুব সহজে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু তাদের কখনো বলা হয়নি যে তাদের যমজ আরেকটি ভাই বা বোন আছে।ওই চিকিৎসক বলেন, আমি খুব করে আশা করি তাদের সমস্যাটার একটি সমাধান হোক। আমার জন্য এটা মারাত্মক ব্যতিক্রম একটি অভিজ্ঞতা কারণ আমার কাজ হচ্ছে দম্পতিদের গর্ভধারণে সহায়তা করা। এই প্রথম আমার ক্যারিয়ারে ব্যর্থ হবার কারণে আনন্দবোধ করছি।

সত্য জানতে পেরে যার পর নাই বিব্রত স্বামী-স্ত্রী দুজনেই। এই চরম অস্বস্তির মধ্যেই আবার মরার উপর খাড়ার ঘায়ের মতো আইনি ভয়। কারণ, মিসিসিপিতে ভাই-বোনের বিবাহ আইনত দণ্ডনীয়। সেদেশে এই অপরাধে সাধারণত ১০ বছরের কারাদণ্ড ও ৫০০ মার্কিন ডলার জরিমানা হয়ে থাকে। তবে মনে করা হচ্ছে, এই ঘটনাটি ষেহেতু সত্যিই ‘অসাধারণ’, তাই হয়ত রেহাই মিলতে পারে যুবক-যুবতী দুজনেরই। তবে দম্পতির গোপনীয়তা বজায় রাখতেই তাঁদের এবং ওই ডাক্তারের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

Loading...

About Rezaul Khan

Check Also

স্ত্রী দুরে থাকলে স্বামী হস্তমৈথুন করলে কি গুনাহ হবে?

Loading... শাইখ ইবনে উছাইমিন (রহঃ) কে একবার জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, স্বামী-স্ত্রীর জন্য টেলিফোনে যৌন বিষয়ে …