Breaking News
Home / খেলাধুলা / ফের আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ড, হাতেনাতে আটক তিনজন!

ফের আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ড, হাতেনাতে আটক তিনজন!

Loading...

ফের আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ড, হাতেনাতে আটক তিনজন!
র আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কালো ছায়া। শেষমেশ কানপুর পুলিশ এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অ্যান্টি কোরাপশন ইউনিট হোটেল যৌথভাবে ল্যান্ডমার্কে তল্লাশি চালিয়ে তিন বুকিকে হাতে নাতে ধরে ফেললো আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং করার অপরাধে।

এদের কাছ থেকে পুলিশ প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা, পাঁচটা মোবাইল ফোন সহ বেশকিছু আপত্তিকর জিনিষ উদ্ধার করেছে। এই তিন বুকির মধ্যে রমেশ নয়ন শাহ হল মুম্বইের থানের এক বড় ব্যবসায়ী। বাকি দুই জনের মধ্যে রমেশ কুমার হল কানপুরের চুন্নিগড় বাসিন্দা।

এবং বিকাশ চৌহান থাকে কানপুরের পুখরায়নে। এই তিনজনকে কানপুরে হয়ে যাওয়া দিল্লি ডেয়ারডেভিলস এবং গুজরাট লায়ন্সের ম্যাচে ফিক্সিং করার জন্য গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর কোটওয়ালি থানার পুলিশ এদের কোর্টে তুলে ফের জেলে পাঠিয়ে দেয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কানপুরের ল্যান্ডমার্ক হোটেলে যেখানে টিম গুজরাট এবং দিল্লির
ক্রিকেটাররা ছিল, সেখানে রমেশ কুমার আগেই রমেশ নয়ন শাহ-র নামে রুম বুক করেছিল। যাতে তারা ক্রিকেটারদের সঙ্গে যোগযোগ তৈরি করতে পারে।

এই তিন বুকি মূলত পিচের পরিস্থিতির ওপর নজর রেখে বেটিং করতো। যেহেতু রমেশ কুমার স্টেডিয়ামের ফ্লেক্স লাগানোর কাজে যুক্ত ছিল, তাই তার পক্ষে পিচের ওপর গিয়ে অবস্থার নিরিক্ষণের পাশাপাশি মোবাইলে ছবি তুলে রমেশ নয়নকে পাঠানোর কাজটা খুব একটা কঠিন হত না।

সেইভাবে দিল্লি এবং গুজরাট ম্যাচের আগে কানপুরের পিচের ছবি রমেশকে পাঠিয়েছিল সে। আর হোটেল রুমে বসে রমেশ নয়ন শাহ আজমেড়-এর নামজাদা বুকি বান্টিকে সে সব তথ্য পাঠিয়েছে। বান্টি সেই সব তথ্য নিয়ে সর্বত্রে বেটিং করেছে।

পুলিশ জানতে পেরেছে, রমেশ শাহ তার পার্টনার ব্যান্টিকে একটি মেসেজ পাঠিয়ে জানিয়েছিল, সে হোটেলে গুজরাট লায়ন্সের দুটি ক্রিকেটারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছে। এবং সেই দুই ক্রিকেটার নাকি তাদের কথা অনুযায়ী কাজ করার ব্যাপারে সম্মতি জানিয়েছে।

একটি ম্যাসেজে রমেশ শাহ তার সঙ্গী বান্টির কাছে দাবী করে, বুধবারের ম্যাচে গুজরাট ২০০ রান করেও নিশ্চিতভাবে হারবে। বাস্তবে অবশ্য সেটাই ঘটেছে। ১৯৫ রান করেও, শেষদিকে ২ উইকেটে দিল্লির কাছে ম্যাচটা হেরে বসলো। শেষ ওভারে ম্যাচ জিততে দিল্লির বাকি ছিল মাত্র ৯ রান।

সেখানে অমিত মিশ্র পর পর দুটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দিল্লিকে ম্যাচ জিতিয়ে দিলেন। এদিন, বোর্ডের তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, ‘বিসিসিআইয়ের অ্যান্টি কোরাপশন ইউনিট সবকিছুর ওপর সমানভাবে নজর রাখছিল। যার ফল স্বরূপ তিনজন বুকিকে বৃহস্পতিবার কানপুর থেকে গ্রেফতার করা হল।

উত্তরপ্রদেশের দূর্নীতিদমনশাখা বুকিদের ওইসব বেআইনি কার্যকলাপ বন্ধ করতে পারবে। পাশাপাশি যারা এই কাজটি সফল হতে সাহায্য করেছে, তারা ভবিষ্যতেও এ মামলায় তদন্তের কাজ চালিয়ে যাবে।’

Loading...

About Rezaul Khan

Check Also

বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ম্যাচে চোখ রাখতে দেরী হলেই সর্বনাশ!

Loading... বৃহস্পতিবার লন্ডনের কেনিংটন ওভালে খেলা দেখতে যাচ্ছেন কারা? যারা যাচ্ছেন তাদের জন্য আয়োজকদেরই এক …